Tax

২০১৮-য় আয়করে বড়োসড়ো বদল এলটিসিজি ট্যাক্স

ওয়েবডেস্ক: এক বছরের বেশি সময় ধরে কোনো শেয়ারে বিনিয়োগ করে রাখলে তার থেকে প্রাপ্ত লাভের উপর কেন্দ্র যে কর কাটবে সেটিকেই বলা হচ্ছে লং টার্ম ক্যাপিটাল গেইন্স ট্যাক্স বা সংক্ষেপে এলটিসিজি ট্যাক্স। দীর্ঘমেয়াদী মূলধনী লাভের ওপর নতুন এই কর চালু করা হয়েছে ২০১৮-র ১ এপ্রিল থেকে।

ব্যাপারটা ঠিক এ রকম: ২০১৮-এর ১ এপ্রিল আপনি কোনো সংস্থার শেয়ার কিনলেন। ধরুন সেই শেয়ারে আপনি বিনিয়োগ ক‌রলেন ১০০ টাকা। ২০১৯-এর এপ্রিলে সেই স্টকটি আপনি বিক্রি করতে চাইছেন। করে দিন। কিন্তু ওই শেয়ার থেকে আপনার যদি ৫০ টাকা লাভ হয়, অর্থাৎ স্টকটির দাম এক বছর পরে যদি ১৫০ টাকা হয়ে যায়, সে ক্ষেত্রে আপনার লাভের ওই ৫০ টাকাকেই বলা হবে দীর্ঘ মেয়াদি পুঁজি লাভ। যে অর্থ পড়ে যাবে ওই এলটিসিজি ট্যাক্সের আওতায়। তবে মনে রাখতে হবে, ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ থেকে লগ্নি করা মূলধনই এই করের আওতায় আসবে। আগে কেনা স্টক তার আগের মতোই কর-মুক্ত থাকবে।

এই কর দেবেন কে?

যে কেউ শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ করতে পারেন। এবং করছেনও। তাই বলে এখন থেকে প্রত্যেককেই এই কর দিতে হবে না। কারণ প্রস্তাবিত বাজেটের কার্যকর হওয়ার সময় থেকেই তা প্রযোজ্য হবে। অর্থাৎ যাঁরা ১ এপ্রিল, ২০১৮-র পরে বিনিয়োগ করে দীর্ঘ মেয়াদি পুঁজি লাভ করবেন তাঁরাই এই কর দেওয়ার যোগ্য হিসাবে বিবেচিত হবেন। তবে শুধু দীর্ঘ মেয়াদি নন, স্বল্প মেয়াদি বিনিয়োগকারীরাও এর আওতায় পড়ে যাবেন।

করের পরিমাণই বা কত?

ধরুন আপনি এক বছরের বেশি সময় ধরে কোনো শেয়ারে বিনিয়োগ করে রেখেছিলেন। আপনার লাভের পরিমাণ যখন ওই বিনিয়োগের উপর এক লক্ষ টাকার উপরে চলে যাবে তখন আপনাকে কর দিতে হবে ১০ শতাংশ হারে। আবার আপনি যদি স্বল্প মেয়াদি বিনিয়োগ থেকে এক লক্ষ টাকা লাভ করে থাকেন তা হলে করের হার দাঁড়াবে ১৫ শতাংশ।

প্রতিবেদনটি পুন‌ঃপ্রকাশিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *